মৌলভীবাজার গণধর্ষণের শিকার ১৩ বছরের কিশোরী

193

মৌলভীবাজারঃ মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার রহিমপুর ইউনিয়নের পশ্চিম কালেঙ্গা এলাকায় ১৩ বছরের এক কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ ওঠেছে। গতকাল বুধবার রাতে গুরুতর অবস্থায় ওই কশিোরীকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে ওই কিশোরী ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।
ওই কিশোরীর বাড়ি পশ্চিম কালেঙ্গা। যাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তারা হলনে একই এলাকার জালাল মিয়া, আব্দুল, মনির , জলিল, আলমগীর ও হৃদয় ইসলাম। এদের মধ্যে জালালের সঙ্গে মেয়েটি পূর্ব পরিচতি ছিল। মেয়েটি জানায়, রাতে সে দোকান থেকে আসার সময় তার দাদী তাকে ডাকছে বলে জালাল তাকে নিয়ে যায়। এরপর তার গায়ের উড়না মুখে পেছিয়ে তাকে একটি টিলার উপরে নিয়ে জালালসহ কয়েকজন তাকে ধর্ষণ করে।

কিশোরীর মা বলেন, ‘আমরা খুবই গরিব, আমার মেয়ে খুবই সহজ সরল। তার বয়স মাত্র ১৩ বছর,এতো অল্প বয়সে আমার মেয়েকে পাশন্ডরা এমন অত্যাচার করল।’ তিনি অভিযোগ করেন জালালের নেতৃত্বে আরো পাঁচজন মিলে তার মেয়েকে ধর্ষণ করেছে। তিনি জালাল ও তার সাথীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি জানান ।
তবে এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে কোন মামলা হয়নি। স্থানীয় ব্যক্তিবর্গের মাধ্যমে সালিসে বিচার না পেলে দোষি ব্যক্তিদের বিরুদ্বে মামলা করা হবে বলে জানিয়েছেন কিশোরীর বাবা বাচ্চু মিয়া।

এ.এস.কাঁকন, MB TV মৌলভীবাজার।
নতুন সংবাদ ও তথ্যচিত্র দেখতে MB TV সাবস্ক্রাইব করে আমাদের সাথে থাকুন।