মন-পছন্দের বই পেয়ে আনন্দিত আবু তালেব

177


:: নিজস্ব প্রতিবেদক, মৌলভীবাজার :: বই মানুষের মনকে সুন্দর করে। কিন্তু অনেকে আজকাল আর কাউকে বই উপহার দেন না। মানুষের মনকে সুন্দর করার জন্য বই হলো সবচেয়ে ভালো উপহার। অনেকে মনে করেন বই এখন আর কোনো উঁচু মানের উপহার না। তাই এখন আর কোনো অনুষ্ঠানে কেউ বই উপহার দেয় না। অথচ আগেরকার দিনে মানুষ কাউকে উপহার দেওয়ার কথা চিন্তা করলে বইকে বেছে নিত। আজকাল অনেকে শুধু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে স্ট্যাটাস দেওয়া আর কম্পিউটার নিয়ে ব্যাস্ত, নিজের পাঠ্যবই ছাড়া অন্যবই পড়ার সময় নেই তাদের। কিন্তু বইপাঠ একজন মানুষকে মুক্তচিন্তার অধিকারী করে দেয়, করে দেয় আলোকিত, আর সেই বইপাঠ যদি হয় নিজের পছন্দের লেখকের তাহলেত আনন্দের সীমানাটা হয়ে যায় দ্বীগুণ। ঠিক তেমনি নিজের মন পছন্দের লেখকের বই পেয়ে আনন্দিত মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর মেধাবী ছাএ আবু তালেব চৌধূরী।
সোমবার (২৬ আগস্ট) দুপুরে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে মৌলভীবাজার জেলার নবাগত পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ পিপিএম (বার) তার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে আবু তালিব চৌধুরীকে তাঁর মন-পছন্দের কিছু বই উপহার দিয়েছেন। আজ সেই পছন্দের বইগুলো পেয়ে সে অনেক আনন্দিত। আবু তালিব মৌলভীবাজার শহরের কাশিনাথ রোডের মৃত শফিকুর রহমান চৌধুরি ও সুফিয়া বেগমের সন্তান। সে পড়া-লেখায় অনেক মেধাবী। আবু তালিব বড় হয়ে একজন ভালো মানুষ হতে চায় এবং দেশ ও মানবতার সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে চায়।

পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ আবু তালিবকে বই উপহার দিয়ে তার সফলতা কামনা করে বলেন, একবার যদি আপনার বইপড়া অভ্যাসে পরিণত হয়, তাহলে আপনার সৃজনশীল মানসিকতার বিকাশ ঘটবে খুব সহজেই। এমনকি চিন্তাশক্তি হয়ে উঠবে সবল। কাজেই নিজের যেমন বই পড়ার অভ্যাস করতে হবে তেমনি সন্তানদের মধ্যেও এই চর্চা ছড়িয়ে দিতে হবে। ছোটবেলা থেকেই শিশুর হাতে বই তুলে দিতে হবে। তাকে মুখে গল্প শোনাতে হবে। আজকালকার শিশুরা বইয়ের থেকে টিভি, কম্পিউটারের প্রতি আসক্ত বেশি হচ্ছে। তারা যদি বই না পড়ে, গল্প না শোনে তাহলে তারা প্রশ্ন করতে শিখবে না,ভাল বক্তব্য দিতে পাড়বে না।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসপি) মোহাম্মদ সারোয়ার আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হেড-কোয়াটার্স) তানজিলা সিদ্দিকা, মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) পরিমল চন্দ্র দেব।
উল্লেখ্য গত শনিবার (২৪আগষ্ট) মৌলভীবাজারে ৭ দিনব্যাপী বৃক্ষমলার উদ্বোধনি অনুষ্টানে ছাত্রদের মধ্যে থেকে বন ও পরিবেশ রক্ষায় করনীয় নিয়ে আবু তালিব বক্তব্য প্রদান করে। তার সেই সুন্দর বক্তব্যে মুগ্ধ হয়ে পুলিশ সুপার মঞ্চে ঘোষনা করেন আবু তালিবকে তাঁর মন-পছন্দের বই তিনি উপহার দেবেন।