নির্বাচন এলে যুদ্ধক্ষেত্র তৈরি হয়, এটি কাম্য নয়, মৌলভীবাজারে সিইসি

181

মৌলভীবাজারঃ প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, নির্বাচন এলে দেশে যুদ্ধক্ষেত্র শুরু হয়। এটি একটি গণতান্ত্রিক দেশের জন্য কাম্য নহে। বৃহস্পতিবার (১৪মার্চ) সন্ধ্যায় মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে মতবিনিময় কালে এ কথা বলেন সিইসি। কে এম নুরুল হুদা বলেন, আমরা নির্বাচনের প্রেক্ষাপট তৈরি করি,আমি রিটাার্নিং অফিসার ও প্রিজাইডিং অফিসার নিয়োগ দেই,আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যকে নিয়োজিত রাখি যাতে সুষ্ঠভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়,এটা আমার কাজ, কিন্তু রাজনৈতিক দলের লোকজনকে বলবো আপনাদের নিজেদের মধ্যে মত বিরোধ থাকলে সেগুলো মিমাংসা করে নির্বাচনে আসেন এটা বলার আমার কোন সুযোগ নেই। কেন্দ্রের ভেতর স্থান সংকুলান থাকায় আমরা ভোট কক্ষের ভেতর থেকে লাইভ টেলিকাস্ট করতে নিষেধ করি। কারণ এতে নির্বাচন পরিচালনায় বিঘœ ঘটে। তবে কক্ষের বাইরে থেকে চিত্রধারণ করা যাবে। নির্বাচন কেন্দ্রেই সাংবাদিক, পর্যবেক্ষক ও প্রার্থীদের প্রতিনিধির সামনেই ভোট গণনা ও ফলাফল ঘোষণা করতে হবে। নুরুল হুদা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উদ্দেশ্যে বলেন নির্বাচন নিয়ে পক্ষপাতিত্বমূলক আচরণ করা যাবে না। সকল বাহিনী আইনশৃংখলা রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন। ভোটার ও প্রার্থীর নিরাপত্ত্বা নিশ্চিত করতে হবে। কোন প্রার্থী ও তার এজেন্টকে যেনো কেন্দ্র থেকে বাহির করার চেষ্টা না করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রুকন উদ্দিন ,পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহজালাল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আশরাফুর রহমান, ৪৬ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আরিফুল হকসহ জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তা, আনসার কর্মকর্তাসহ জেলার সবকটি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবং প্রশাসনের পদস্থ কর্মকর্তারা। এ.এস.কাঁকন, MB TV মৌলভীবাজার। নতুন সংবাদ ও তথ্যচিত্র দেখতে MB TV সাবস্ক্রাইব করে আমাদের সাথে থাকুন।