আ. লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক নাদেল

49

MB নিউজ ডেক্স :  আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক হয়েছেন শফিউল আলম নাদেল। বৃহস্পতিবার  (২৬ ডিসেম্বর) রাতে দলের ধানমণ্ডি কার্যালয়ে কমিটির  ৮১ সদস্যবিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির আরও ৩২ জনের নাম ঘোষণা করা হয়। এ কমিটিতে সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে জায়গা পেয়েছেন শফিউল আলম নাদেল।

শফিউল আলম নাদেল এর আগে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। একইসাথে তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালকের দায়িত্ব পালন করছেন। গত ৫ ডিসেম্বর সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ওই সম্মেলনে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী ছিলেন নাদেল। তবে সম্মেলনে তাকে এ দায়িত্ব দেওয়া হয়নি। কিন্তু এবার আরো বড় দায়িত্ব পেয়েছেন ছাত্রলীগের রাজনীতি দিয়ে ওঠে আসা এই নেতা।

দৃশ্যমান কোনো আলোচনায় না থাকা স্বত্ত্বেও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রে গুরুত্বপূর্ণ পদ পাওয়া নাদেল যেন রীতিমতো চমকে দিয়েছেন সিলেটের রাজনৈতিক অঙ্গনকে। জানা গেছে, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক পদে এবার সিলেট থেকে এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ ও বদর উদ্দিন আহমদ কামরান আলোচনায় ছিলেন। কিঞ্চিত আলোচনা ছিল প্রয়াত পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুস সামাদ আজাদের ছেলে আজিজুস সামাদ ডনকে ঘিরে। কিন্তু টানা তিন মেয়াদের সাংগঠনিক সম্পাদক এবার কেন্দ্রে কোনো পদই পাননি। আগের কমিটির নির্বাহী সদস্য কামরান এবারও একই পদে আছেন। আর আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক ডনেরও জায়গা হয়নি এবারের কেন্দ্রীয় কমিটিতে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদে শফিউল আলম নাদেলের নামে কোনো আলোচনা ছিল না। কিন্তু দলটির সভানেত্রী শেখ হাসিনা আস্থা রেখেছেন তার ওপর।

শফিউল আলম নাদেল স্কুলজীবনেই ছাত্রলীগের সাথে জড়িত হন। ১৯৮৭ সালে তিনি এমসি কলেজ ছাত্রলীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য হন। ১৯৮৯ থেকে ১৯৯৩ সাল পর্যন্ত জেলা ছাত্রলীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য ছিলেন। ১৯৯৩ সালে তিনি সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হন। পরে ১৯৯৭ সালে হন সভাপতি।  ২০০৪ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগে শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ২০১১ সালের নভেম্বর থেকে তিনি সাংগঠনিক সম্পাদক হন। এ দায়িত্ব পালন করেন গত ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

শফিউল আলম নাদেল রাজনীতির বাইরে ক্রীড়াঙ্গনের সাথেও জড়িত। তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক, ছিলেন সিলেট বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক। এছাড়া সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সহসভাপতির দায়িত্বও পালন করছেন নাদেল।

গত ২০ ও ২১ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনে কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির ৪২ জনের নাম ঘোষণা করা হয়। বাকি ৩৯টি পদের মধ্যে ৩২ জনের নাম ঘোষণা হওয়ার পর আরও ৭ জনের নাম বাকি রয়েছে। বৃহস্পতিবার  রাতে দলের ধানমণ্ডি কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এসব নাম ঘোষণা করেন।